১৫০ কোটি ডাউনলোডের মাইলফলকে টিকটক
বিভিন্ন গান, বিখ্যাত সিনেমার সংলাপসহ নানা রকম মজাদার অডিওর সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে ছোট ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় টিকটক অ্যাপে। কয়েক বছর ধরে টিকটক ব্যবহারকারী দ্রুত বাড়ছে। সেন্সর টাওয়ার নামের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী টিকটক ১৫০ কোটি ডাউনলোডের মাইলফলক স্পর্শ করেছে। প্লেস্টোর ও অ্যাপ স্টোরের ডাউনলোড সংখ্যা মিলিয়ে এ সাফল্য অর্জন করেছে টিকটক।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সবচেয়ে বেশিসংখ্যক টিকটক ডাউনলোড হয়েছে ভারতে। দেশটিতে ৪৬ কোটি ৮০ লাখবার অ্যাপটি ডাউনলোড হয়েছে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্যাটফর্মে ১০০ কোটিবার ডাউনলোডের মাইলফলক পার হয় চীনের বাইটড্যান্সের তৈরি অ্যাপটি। চলতি বছর অ্যাপটি এখন পর্যন্ত ডাউনলোড করা হয়েছে ৬১ কোটি ৪০ লাখবার।

টিকটক কর্তৃপক্ষ বলছে, টিকটক ব্যবহারকারীদের ধরে রাখতে তারা এ প্ল্যাটফর্ম থেকে অর্থ আয়ের সুযোগ করে দেবে। অ্যাপটির কনটেন্ট ক্রিয়েটররা যাতে নিজেদের অ্যাকাউন্টে ই-কমার্স সাইটের লিঙ্ক যুক্ত করতে পারেন, সে জন্য নতুন ফিচার নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছে তারা। ফিচারটি যুক্ত হলে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা ভিডিও দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। ইনস্টাগ্রামের প্রোফাইলেও লিঙ্ক যুক্ত করার সুবিধা থাকবে।

সেন্সর টাওয়ারের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া নন-গেমিং অ্যাপের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে টিকটক। সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এ বছর ৭০ কোটি ৭৪ লাখবার ডাউনলোড হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এরপর রয়েছে ৬৩ কোটি ৬২ লাখবার ডাউনলোড হওয়া মেসেঞ্জার অ্যাপ। চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফেসবুক অ্যাপ। ফেসবুক ডাউনলোড হয়েছে ৫৮ কোটি ৭০ লাখবার। পঞ্চম স্থানে রয়েছে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ। এটি ডাউনলোড হয়েছে ৩৭ কোটি ৬২ লাখবার।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, ফেসবুককে নানাভাবে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছে টিকটক। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গও এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছেন। সম্প্রতি জাকারবার্গের ফাঁস হওয়া কথোপকথন অনুযায়ী, চীনা নির্মাতাদের তৈরি প্রথম কোনো পণ্য যা বৈশ্বিক পর্যায়ে ভালো করছে। তিন বছর ধরে বেড়েই চলেছে চীনা ভিডিও তৈরির অ্যাপ টিকটকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা।

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন